পাকিস্তানের অনুরোধ রাখল না ফেসবুক

ফেসবুকে প্রতিটি অ্যাকাউন্টের সঙ্গে ফোন নাম্বার সংযুক্ত করার অনুরোধ করেছিল পাকিস্তান। তবে এ অনুরোধ শেষ পর্যন্ত মানতে অপারগতা জানিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি।

ফেসবুকের ভাইস প্রেসিডেন্ট জোয়েল ক্যাপলান গত সপ্তাহে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার আলী খানের সঙ্গে দেখা করেন। সে সাক্ষাতেই প্রসঙ্গটি তুলেছিলেন মন্ত্রী।

ধর্ম অবমাননাকারী বিভিন্ন ফেসবুক পোস্টদাতাদের আইনের মুখোমুখি করতে চায় পাকিস্তান সরকার। কিন্তু ফেসবুকে ওইসব পোস্ট দাতাদের অনেকেরই পরিচয় পাওয়া যায় না। এ কারণে তাদের প্রত্যেকের প্রোফাইলের সঙ্গে মোবাইল নম্বর জুড়ে দেওয়ার প্রস্তাব ছিল মন্ত্রীর। এতে তাদের সবাইকে আইনের মুখোখুখি করা সহজ হতো।

এর আগে পাকিস্তান ধর্মীয় বিদ্বেষমূলক কনটেন্ট পোস্টের তদন্ত করতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকের কাছে সাহায্যের অনুরোধ করেছিল। আর এই অনুরোধে সাড়া দিয়ে ফেসবুক ইতোমধ্যে সাইটটি থেকে এ ধরনের অসংখ্য কনটেন্ট সরিয়ে নেয়।

ব্লাসফেমি পাকিস্তানে একটি অত্যন্ত সংবেদনশীল ইস্যু। সমালোচকরা বলছেন ব্লাসফেমি আইন (যা কিছু কিছু ক্ষেত্রে মৃত্যুদণ্ডের অনুমতি দেয়) প্রায়ই সংখ্যালঘুদের ওপর অপব্যবহার করা হয়ে থাকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্লাসফেমি কনটেন্টের বিষয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ তার দলের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে মন্তব্য করেন, ব্লাসফেমি একটি ‘অমার্জনীয় অপরাধ’।

অপরদিকে, ফেসবুক সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে ব্যবহারকারীদের অধিকার ক্ষুণ্ণ হতে পারে এমন কোনো সিদ্ধান্ত তারা নেবে না। এ কারণে তারা নতুন অ্যাকাউন্ট খোলার নীতিমালাও পরিবর্তন করছে না।

Facebook

Get the Facebook Likebox Slider Pro for WordPress