‘লেডি শচীন’ এখন ‘লেডি কোহলি’!

ছেলেদের ক্রিকেট নিয়ে মিডিয়ায় যেমন মাতামাতি হয়, মেয়েদের ক্রিকেট নিয়ে ততটা নয়। চলতি নারী বিশ্বকাপে পারফর্মেন্স দেখিয়ে মিডিয়ার দৃষ্টি ফেরাতে সফল হয়েছেন নারী ক্রিকেটাররা। তার মধ্যে একজন ভারতের নারী দলের অধিনায়ক মিতালি রাজ। মেয়েদের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়ে যিনি ‘লেডি শচীন’ নামে পরিচিত। কিন্তু সাম্প্রতিক ফর্ম তাকে ইতিমধ্যেই ‘লেডি কোহলি’ তকমা দিয়েছে!

বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৪১ রান করার পরই প্রথম নারী হিসেবে ৬০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন মিতালি। এ দিনই ওয়ান ডে ক্রিকেটে সর্বাধিক রানের মালিক বনে যান ৩৪ বছরের হায়দরাবাদি। শেষ ১৩ ম্যাচে দাপুটে ব্যাটিং দেখিয়ে পুরুষ দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে তুলেছেন মিতালি। সতীর্থদের কাছে তিনি এখন শুধু শচীন নন, এবার তিনি এখন ‘লেডি কোহলি’ও বটে।

শনিবার বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে ওয়ান ডে ক্যারিয়ারে ষষ্ঠ সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ভারতকে কাঙ্খিত জয় এনে দেন অধিনায়ক। পরিসংখ্যান বলছে, কোথাও যেন কোহলিকে টক্কর দিচ্ছেন হায়দরাবাদি কন্যা। চলতি বছরে ব্যাট হাতে ১৪ ইনিংসে কোহলির ব্যাট থেকে এসেছে ৬৯৫ রান। এক ইনিংস কম খেলে মিতালির সংগ্রহ ৬৭৬। এখানেই শেষ নয়! রেকর্ডবুকে নাম তোলাটা যেন এখন যেন ‘লেডি কোহলি’র কাছে ডালভাত। টানা ৭ ম্যাচে হাফ-সেঞ্চুরি করে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন তিনি।

২০১৬ কোহলির ব্যাটিং বিশ্বের বড় বড় বোলারদের ঘুম কেড়েছিল। সেই ফর্ম ধরে রেখেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বছরের শুরু থেকে দাপট অব্যাহত রেখেছেন ‘ক্যাপ্টেন হট’। চলতি বছরের প্রথম ম্যাচে পুনেতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানান ‘কিং কোহলি’। এখানেও কোহলির সঙ্গে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই মিতালির। ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বছরের প্রথম ম্যাচে ৭০ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলে আরও উচ্চতায় ‘কুইন মিতালি’।

Facebook

Get the Facebook Likebox Slider Pro for WordPress