‘নোংরা’ সেলফি তুললেই পাবেন স্মার্টফোন


সেলফি এখন আর একটা শব্দ নয় কেবল। সেলফি একটা রোগের নাম, যার দ্বারা আক্রান্ত তরুণ প্রজন্মের বড় অংশ। সোশাল মিডিয়ায় মিনিট কয়েক স্ক্রল করলেই বোঝা যায় সেলফির হিড়িক কোন জায়গায় পৌঁছেছে। ঠিক এই হিড়িককেই হাতিয়ার করে অভিনব পদক্ষেপ নিল ভারতের জামশেদপুরের পুরসভা। আজকের প্রজন্মকে স্বচ্ছ ভারত অভিযানের প্রতি উৎসাহী করতে জামশেদপুরের ম্যাঙ্গো নোটিফায়েড এরিয়া কমিটি ঘোষণা করেছে, ডাস্টবিনের সামনে দাঁড়িয়ে যিনি সেরা সেলফিটি তুলবেন, তাঁকে পুরস্কার হিসেবে একটি স্মার্টফোন দেওয়া হবে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, জামশেদপুর শহর লাগোয়া ম্যাঙ্গো নোটিফায়েড এলাকায় প্রায় ৩ লক্ষ মানুষের বাস। এই পুরো এলাকায় বাসিন্দাদের ডাস্টবিন ব্যবহারে উৎসাহ দিতে ও স্থানীয় যুবকদের ‘স্বচ্ছ ভারত’-এর প্রচারে সামিল করতে এই অভিনব প্রতিযোগিতা শুরু করেছে ম্যাঙ্গো নোটিফায়েড এরিয়া কমিটি।

খবরে আরো বলা হয়েছে, স্থানীয় বাসিন্দাদের ডাস্টবিনের সামনে দাঁড়িয়ে একটি সেলফি তুলতে হবে। তোলা সেলফিটি ম্যাঙ্গো নোটিফায়েড এরিয়া কমিটির অফিসে জমা দিতে হবে।

জানা গেছে,এই প্রতিযোগিতার জন্য ফেসবুকে একটি পেইজও তৈরি করেছে ম্যাঙ্গো নোটিফায়েড এরিয়া কমিটি। চাইলে সেই পেজেও ডাস্টবিনের সামনে তোলা সেলফিটি শেয়ার করতে পারেন উৎসাহীরা।
সে ক্ষেত্রে আলাদা করে আর কমিটির অফিসে সেলফি জমা দিতে হবে না। পরে লাকি ড্রয়ের মাধ্যমে তিনজন বিজেতাকে বেছে নেওয়া হবে। ২ অক্টোবর, গান্ধী জয়ন্তীর দিন, পুরস্কার হিসেবে বিজেতাদের হাতে স্মার্টফোন তুলে দেবে নোটিফায়েড এরিয়া কমিটি। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে এই প্রতিযোগিতা।

নোটিফায়েড এরিয়া কমিটির স্পেশাল অফিসার সঞ্জয় কুমার জানান, ‘আজ-কালকার ছেলেমেয়েরা সেলফিতে ভীষণভাবে আসক্ত। তাই শহরকে পরিষ্কার রাখার বিষয়ে তাঁদের সচেতন করতেই এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। ‘

Facebook

Get the Facebook Likebox Slider Pro for WordPress